Wednesday, February 25, 2015

সমবায় ও মোবাইল ব্যাংকিং বাংলাদেশ

বাংলাদেশে সমবায়ের বিশাল আকারে পরিকল্পনা নেওয়া উচিত বলে আমি মনে করি।  সারাদেশ জুড়ে সমবায় সমিতি ও সমবায় ব্যাংকের বড় পরিকল্পনা থাকা উচিত।  সারাদেশ এমনকি গ্রাম পর্যায়ে মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে সমবায় ব্যাংকের একটা লিংকআপ তৈরী করলে ভালোয় হবে বলে আমি মনে করি।  মানুষ অতিরিক্ত অর্থ মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে টাকা সঞ্চয় করতে পারবে যেকোনো সময় যেকোনো জায়গা থেকে।  এতে করে সময় ও খরচ দুইটিই বাঁচবে।  বাংলাদেশের ১৬ কোটির উপরে মানুষ ১২ কোটি মানুষের কাছে আজ মোবাইল।  জানুয়ারি ২০১৪ শেষে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মোট গ্রাহক দাঁড়িয়েছে দুই কোটি ৫২ লাখ ৩৬ হাজার।  এসব গ্রাহকের সচল অ্যাকাউন্টের সংখ্যা এক কোটি ১০ লাখ ৫৩ হাজার। আগের মাস ডিসেম্বরে মোট গ্রাহক ছিল দুই কোটি ৫১ লাখ ৮৬ হাজার। আর সচল ছিল এক কোটি ২১ লাখ ৫৪ হাজার অ্যাকাউন্ট। এতে এক মাসের ব্যবধানে মোট গ্রাহক ৫০ হাজার বাড়লেও সচল অ্যাকাউন্ট কমেছে ১১ লাখ।  এই যে এতো মানুষ ব্যাংকিং এর আওতায় আসলো, এই সব মানুষদের আরো অনেক সুযোগ সুবিধা দেওয়া সম্ভব।  এই সকল মানুষদের ঝামেলা মুক্ত ঘুষ মুক্ত দুর্নীতি মুক্ত সমাজ করা সম্ভব।  টাকা দিয়ে এ সম্পর্ক তৈরী হয় আবার টাকা দিয়ে এ সম্পর্ক শেষ হয়।  এই জন্য এই টাকার লেনদেনটা ঝামেলা মুক্ত ভাবে ভায়া মিডিয়া না হয়ে সরাসরি গ্রাহক ও সার্ভিস হোল্ডারদের সংযুক্ত করা ভালো।   

চলচ্চিত্র ও আমি

চলচ্চিত্র নিয়ে এতটা শখ ছিলোনা আমার, হটাত করেই চালু করি Chitrojogot.Com নামের সাইট।  কিন্তু নিউজ সাইট হইয়াই আর বেশিদিন চালু রাখতে পারিনি।  নিউজ সংগ্রহ করা খুব একটা বেশি কঠিন ছিলোনা, বিষয়টা হয়ে গেছে স্পন্সর না পাওয়া।  শেষমেষ কোনো স্পন্সর না পেয়ে ১২০০ তে আসা আমার সাইটটি বন্ধ হয়ে যায় এখানেও বারিশাল্লার গাফলতির কারণে।  আর তারপর বোফা গ্রুপে হালকা এক্টিভ থাকি।  বোফা সর্বশেষ ২২ হাজার মেম্বারের একটি গ্রুপে পরিণত হয়ে গেছে।  তবে এদের ফাউন্ডার মেম্বেরদের অবস্থা খুব একটা বেশি ভালো নেয় আহমেদ জামান শিমুলের  Dhallywood24.Com ছাড়া।  তাদের আরো কিছু সার্ভিসের কারণে তাদের সাইটের আয় অনেকগুণ।  বেশিরভাগ সার্ভিসই চলচ্চিত্রকে নিয়ে।  এছাড়াও সাজ্জাদ খানের Cinemanews24.Com ভালয় এগিয়ে আছে চলচ্চিত্র, নাটক, গান, থিয়েটার সব ধরনের বিনোদনের নিউজ তারা পাবলিশ করে।  Cinemanews24.Com এর দায়িত্বে আছেন আমিনুল ইসলাম শাওন।  এছাড়া আর কোনো সাইটেয় শুধু চলচ্চিত্র কেন্দ্রিক না।  তবে আমি মনে করি সবায় মিলে কাজ করলে চলচ্চিত্রের প্রতি সাধারণ মানুষের একটি পরিবর্তন আসবে এতে চলচ্চিত্রেরও একটি পরিবর্তন আসবে।
আমি এখানেই থেমে নেয় আসবো আবার............................

Tuesday, February 24, 2015

চিত্রজগত অতপর

কখনো ভাবিনি যে আমি কোনদিন ফিল্ম সম্পর্কীয় কোনো কাজ করতে পারবো বা করবো তারপরো কিভাবে কেনো যেনো চায়ের দোকানের তাফায়েলকে দেখে মনে হলো সে আমার গল্পের নায়ক।  তাকে নিয়ে গল্পটা সৃষ্টি হয়েছিলো মনের অজান্তেই কোনো ধরনের পরিকল্পনা ছাড়া।  শুধু কি মানুষ মেয়েদের দিকেয় তাকায় ? ছেলেদের মধ্যে কি কোনো পার্সোনালিটি নেয়।  দেখার ভাব ভঙ্গিটা অনেক কিছু।  নজর যদি ভালো থাকে তবে যতোই দেখতে কুত্সীত হোক মানুষ প্রেমে পরে যাবে।  প্রেম এ আবার আরেক পাগলাচোদা কাজকারবার।  কখন যে কার সাথে কেন ওয়াই ফায় এর কানেক্ট হয়ে যাবে কেউ জানবে না।  এখানে প্রেম প্রকাশ করতে পারাটা অনেক বড় পুরুষত্বের পরিচয়।  ফিল্মের যেকোনো একটা কাজে ঢুকতে পারতাম কিন্তু সাংবাদিকতা কেনো ? লেখালেখির কিছুটা অভ্যাস থাকায় জার্নালিজম পড়তে চেয়েছিলাম কিন্তু হয় নায়।  সেই কারণে একটু ঝোক তাছাড়া আগে থেকেও কিছুটা অভিজ্ঞতা আছে।  তারপর হটাত Chitrojgot.com নামের সাইট নেয় এবং চালু করি কিন্তু বন্ধু সুমন মোল্লার পেচের কারণে ওই প্রজেক্ট ও বন্ধ করে দিতে হয়।  

বন্ধু আরমান

২০০৭ দিন, মাস কোনটায় মনে নেয়।  এক সাথে আমি আরমান কোচিং এ যাচ্ছিলাম।  গেয়েও কি যেনো হলো আর যাওয়া হলোনা, গেলাম গেমসের দোকানে গেমস খেললাম।  এরপরও দুই একদিন গেছিলাম ধরা পরিনি এই প্রথম স্কুল পালানো তার উপর আবার গেমস খেলা।  এর পরের দিন ঠিকই ধরা খেয়ে গেলাম, আম্মা ও আরমানের মা ধরে ফেলেছিলো।  এরপর অনেকদিন আরমানের সাথে আর কথা হয়নি।  মাঝে মাঝে ছাদে দেখা হতো।  ফেসবুক ছিলোনা আমাদের কাছে।  তখন আমাদের দেখা বা যোগাযোগের মাধ্যম ইন্টারকম।  এরপর আমাদের বিল্ডিং এ রিয়ান এলো তার সাথে আমার আগে থেকে খাতির ছিলো একদিন রাতে তার বাসায় ছিলাম সারারাত গল্প করেছি।  সকালে তার নানী নাস্তা খাওয়াইছে।  রিয়ান আমি আরমান ভালোয় জমতো রিয়ান আমাদের মনের কারবার বেশি এইখানে এসে সেই কামটাও করেছিলো এই জন্য কি কেনো কিভাবে হলো মজায় লাগতো।  রিয়ান চলে যাওয়ার পরে আরমানের সাথে আর কথা হয়নাই।  পরে আরমান তার মামার বাড়ি গিয়ে থাকতো মামাতো ভাইদের সাথে নাকি ভালয় কাটত তার।  এরপর একদিন শুনি আরমান নাকি আত্মহত্যা করেছে গলায় কি যেন করে।  তার ভাইয়ের কাজ থেকে শুনি তাকে নাকি মানসিক হাসপাতালে রাখা হইছিলো মনে হয় মোহাম্মদপুর এর দিকে।  এর পর মনটা অনেক খারাপই হয়ে গেলো তার জন্য।  তার জানাজা, কবর দুইটাতেই ছিলাম।  রিয়ান কবর দিতে এসে কান্নায় ফেটে পরেছিলো আজিমপুর গোরস্থানে।  এই জায়গাটা সালা কেউ না মরলে আসে না।
আজ হটাত কেনো যেনো তার কথা মনে হলো।

Monday, September 16, 2013

Chitrojogot.com



Chitrojogot.com first bangladeshi dhallywood based cine web portal. Created by Minhazur Rahman Nayan & his web developer friend Sumon Molla Selim. launching by jointly Ahobantech.com & Swadhinata Home Box a bangladeshi IT company & film production company. Ahobantech was created by Sumon Molla Selim & Swadhinata Home Box created by Montazur Rahman Akbar (father of Minhazur Rahman Nayan).

History

Dhallywood film industry was in crisis after the death of Superstar actor Manna in 2003. His sudden death was like a death blow to the industry. Producers and directors who were totally depended on his stardom were just hopeless. Number of films took a nosedive from 120 films each year to 20. Another star Shakib khan was dominating the industry. But his movies were very high budgets films, which fail to make profit in the Box Office. So production houses stop producing movies. As a result a large number of artists and technicians were job less. Soon afterward they retired or changed their line of work. The whole industry was at the brink of shut down. In this situation JAAZ Multimedia came forward with the idea of digital film making and projection system. Their first release was Bhalobashar Rong. This again injected life in mainstream film making. Crystal clear sound light and the introduction of RED camera in film making changed the industry overnight.  Dhallywood started to roar again. Inspired from digital innovation Minhazur Rahman Nayan, planned this website based on Dhallywood. He shared his idea with his friend Sumon Molla Selim and took  suggestions from Script writer Abdullah Zahir Babu & his father Montazur Rahman Akbar, a renowned Film Director and Producer. The title was suggested by Abdullah Zahir Babu. In June 2013  they took a domain, develop by IT developer Sumon Molla Selim with his IT company Ahobantech. Minhazur Rahman Nayan with his father's Film producing company Swadhinata Home Box developed and financed the website. In July 2013 they together launched the first cine web portal chitrojogot.com in Bangladesh.

Wednesday, March 6, 2013

Poem from Veer-Zaara

Main qaidi number saat sau chiyasi jail ki salaakhon se bahar dekhta hoon
Din mahine saalon ko yug mein badalte dekhta hoon
Is mitti se mere bauji ke kheton ki khusboo aati hai
Yeh dhoop meri maati ki thandi chaas yaad dilati hai
Yeh baaruish mere saawan ke jhoolon ko sang sang laati hai
Yeh sardi meri lodi ki aag sek kar jaati hai
Woh kehte hain yeh mera des nahin
Phir kyon mere des jaisa lagta hai?
Woh kehte hai main us jaisa nahin
Phir kyon mujh jaisa woh lagta hai?
Main kedi number 786 jail ki salakhon se bahar dekh ta hoon
sapno ke gawn se utri
ek nani pari ko dekh ta hoon
kehti hai khud ko Saamiya aur mujh ko Veer bulati hai
hai bilkul begani paar apno si zid woh karti hai
uski sachi baaton se phir jeene ko maan karta hai
uske kaasmon vado se kuch karne ko maan karta hai
Main kedi number 786 jail ki salakhon se bahar dekh ta hoon
mere gawn ke raango mein lipti ek nayi Zaara ko dekhta hoon
Mere khwabon ko pura karte
khud ke khwab bhool chuki hai woh
mere logo ki sewa karte
apne logo ko chor chuki hai woh
uska daaman aab khushion se bharne ko jee karta hai
uske leya ek aur zindagi jeene ko jee karta hai
Woh khete hai ke mein, mera desh uska nahi
phir kyun mere ghar woh rehti hai
woh kehte hai ke mein us jaisa nahi
phir kyun mujh jaisi woh lagti hai
Main kedi number 786 jail ki salakhon se bahar dekh ta hoon
Woh khete hai ko woh koi nahi teri
phir kyun mere liye dunya se woh larti hai
woh khwta hai ke mein us jaisa nahi
phir kyun mujh jaisi woh lagti hai

untitile ...

ভালোবাসা বোলাটা যত সহজ বাসাটা এত সহজ না , কেন ?
কেন পৃথিবী জুরে এত যন্ত্রনা এত আঘাত সয়ে বেরাই মানুষ ?
জীবন মানেই যন্ত্রনা নই ফুলের বিছানা সে কথা সহজে কেউ মানতে চাই না .. গানটি কেন বার বার মনকে নাড়া . . . .???

Sunday, February 24, 2013

একাত্তরের দিনগুলি


জাহানারা ইমাম ও তার ছেলে রুমির কথোপকথন
----------------------------------------------
(২১ এপ্রিল , বুধবার, ১৯৭১)
রুমী: আম্মা, দেশের এ অবস্থায় তুমি যদি আমাকে জোর করে আমেরিকায় পাঠিয়ে দাও, আমি হয়তো যাব শেষ পর্যন্ত।
কিন্তু তাহলে আমার বিবেক চিরকালের মতো অপরাধী করে রাখবে আমাকে।
আমেরিকা থেকে হয়ত বড় ডিগ্রি নিয়ে এসে বড় ইঞ্জিনিয়ার হবো; কিন্তু বিবেকের ভ্রুকুটির সামনে কোনদিনও মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারব না।
তুমি কি তাই চাও আম্মা?

জাহানারা ইমাম: …(আমি জোরে দুই চোখ বন্ধ করে বললাম) …ঠিক আছে, তোর কথাই মেনে নিলাম। দিলাম তোকে দেশের জন্য কোরবানি করে।
যা, তুই যুদ্ধে যা।..."
-----------------------------------------------------------
এই হল দেশ প্রেম,এক ছেলে নিজেকে দেশের জন্য বিলিয়ে দেয় আর তার মা ছেলের মায়া ত্যাগ করে ছেলেকে বিলিয়ে দেন দেশের জন্যে।
কিন্তু তাদের এই আত্মত্যাগ কি সফল হয়েছে?
না হয়নি...আজও এদেশে রাজাকারেরা সদর্পে ঘুরে বেড়ায়...আজও তাদের লুলুপ দৃষ্টি আমাদের এই মাতৃভূমির প্রতি...আজও আমরা শঙ্কায় আছি তাদের বিচার
হবে কিনা?
কিন্তু তার থেকেও দুঃখের বিষয় হচ্ছে আমরা যখন রাজাকার এর বিচার চাই বলে বলিষ্ঠ পদক্ষেপে আগাই তখন কিছু লোক রাজাকার এর মানবাধিকার
রক্ষার জন্য মরিয়া হয়ে থাকে...এই স্বাধীন দেশে রাজাকার বাঁচাবার জন্য তারা আন্দোলন করে,তারা রাজাকারের পক্ষে কথা বলে...তারা রাজাকারকে আদর্শ মনে করে।

লাখো মুক্তিযোদ্ধা কি এ জন্যই প্রান দিয়েছিল?তারা কি জীবনবাজি রেখে দেশকে এই জন্যই স্বাধীন করেছিলেন যাতে রাজাকারের পক্ষে মানুষ
কথা বলে?তাদের রক্ত কি বৃথা যাবে?
প্রশ্নগুলো প্রশ্নই থেকে যায়...আর রাজাকারেরা ব্যঙ্গ হাসি হাসে।

Friday, February 22, 2013

জীবন থেকে নেয়া

জীবন থেকে নেয়া
জীবন থেকে নেয়া - Jibon Theke Neya
"জীবন থেকে নেয়া" চলচ্চিত্রটির কাহিনী, প্রযোজনা এবং পরিচালনা করেন বিখ্যাত নির্মাতা জহির রায়হান। জহির রায়হান একজন বস টাইপের পরিচালক। বর্তমান সময়ের পরিচালকেরা যদি জহির রায়হানকে ফলো করতো তাহলেও বাংলা ছবির অবস্থা খুবই ভালো থাকত। সংগ্রামের চরম পরস্থিতির সময় "জীবন থেকে নেয়া" চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায়।
বিটিভির বদৌলতে এই ছবিটি প্রতি বছর ২১ ফেব্রুয়ারীতে প্রচারিত হয়ে যাচ্ছে। এই ছবি দেখেনি এমন পাবলিক মনে হয় না বাংলাদেশে বাস করে। আমি যতবার "জীবন থেকে নেয়া" ছবিটি দেখি ততবারই পিনিক পাই।
এই ছবিটি মুক্তি দিতে প্রচুর ঝামেলা হয়েছিল। বাংলাদেশ এর স্বাধীনতার পিছনে বড় ধরনীর ভুমিকা রয়েছে এই ছবির।

পরিচালক একটি পরিবার এর এক সার্বভৌম মহিলাকে চিহ্নিত করেছেন তৎকালীন পাকিস্তানের রাস্ট্রপতি আইয়ুব খান এর রাজনৈতিক একনায়কতন্তের রূপক অর্থে। দুইটা সমান্তরাল কাহিনি একসাথে দেখানো হয়েছে জীবন থেকে নেয়া ছবিতে। ঘরের বাইরে রাজনৈতিক অস্থিরতা, আর ঘরের ভিতরে পরিবারের সদস্যদের উপর গৃহকর্ত্রীর অত্যাচার। ছবিতে ১৯৬৯ এর গণভ্যুত্থানের কিছু তথ্যচিত্র দেখানো হয়েছে। ছবিতে রওশন জামিল সেই গৃহকর্ত্রীর চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। যিনি সব কর্তৃত্ব নিজের আয়ত্তে রাখতে চান। তাঁর কাজ হলো, চাবির গোছা ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে সবাইকে ধমক দেওয়া। তাঁর এমন শাসন কেউই মানতে চায় না। একসময় ঘরের দরজা ও দেয়ালে পোস্টার সাঁটা হয়। তাঁর শাসন থেকে মুক্তি পেতে পরিবারের অন্য সদস্যরা আন্দোলনও করে। একসময় তিনি নতিস্বীকার করতে বাধ্য হন। ঠিক একইভাবে পাকিস্তান নতিস্বীকার করতে বাধ্য এবং বাংলাদেশ এর স্বাধীনতা আসে।
ছবিটি শুটিংয়ের সময় সাধারণ মানুষ খুব সহযোগিতা করেছিল (বর্তমান সময়ে এটা স্বপ্ন)। ছবির শুটিং হয়েছিল শহীদ মিনার, আজিমপুর গোরস্তান ইত্যাদি জায়গায়।

এক নজরে জীবন থেকে নেয়া

ছবির নামঃ জীবন থেকে নেয়া - Taken From Life
পরিচালকঃ জহির রায়হান
মুক্তির সনঃ ১৯৭০ ১০ এপ্রিল (পাকিস্তান)
ডিউরেশনঃ ১ ঘন্টা ৫০মিঃ (প্রায়)
সঙ্গীত পরিচালকঃ খান আতাউর রহমান
চিত্র গ্রহণঃ আফজাল চৌধুরী
সম্পাদনাঃ মলয় বন্দ্যোপাধ্যায়
পরিবেশকঃ আনিস ফিল্ম
দেশঃ বাংলাদেশ
ভাষাঃ বাংলা
রঙঃ সাদা কালো
অভিনয়ঃ
  • রাজ্জাক - ফারুক
  • সুচন্দা - বিথী
  • আনোয়ার হোসেন -
  • শওকত আকবর - আনিস
  • রোজি সামাদ - সাথী
  • খান আতাউর রহমান -
  • রওশন জামিল -
  • বেবি জামান -
  • আমজাদ -
গানের তালিকাঃ
  • এ খাঁচা ভাঙ্গব আমি কেমন করে (খান আতাউর রহমান)
  • আমার সোনার বাংলা (রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর)
  • আমার ভাই এর রক্তে রাঙানো
  • কারার এ লৌহ কপাট (কাজী নজরুল ইসলাম)
  • জাগিয়ে দাও
  • ও আমার স্বপ্নঝরা আকুল করা জন্মভূমি

 

"জীবন থেকে নেয়া" এর উদ্ধৃতিঃ

একটি দেশ
একটি সংসার
একটি চাবির গোছা
একটি আন্দোলন
একটি চলচ্চিত্র...

 

জীবন থেকে নেয়া ছবির কিছু স্ক্রিনশটঃ

জীবন থেকে নেয়া
জীবন থেকে নেয়া
জীবন থেকে নেয়া
জীবন থেকে নেয়া
জীবন থেকে নেয়া
জীবন থেকে নেয়া
জীবন থেকে নেয়া
জীবন থেকে নেয়া

 

কারার এ লৌহ কপাটঃ


সহায়ক লিঙ্কঃ

Sunday, February 17, 2013

সব রাজাকারদের ফাসি চাই

সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,
সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,
সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,
সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,
সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,
সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,
সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,
সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,
সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,
সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই ,সব রাজাকারদের ফাসি চাই